স্বল্প পূজিতেই শুরু করুন এই ব্যবসা। কিছুদিনেই হবেন বিপুল অর্থের মালিক।

 করোনা মহামারীর পরবর্তী সময়য়কাল থেকে দৈনন্দিন জীবনে মানুষের অনেক পরিবর্তন দেখা দিয়েছে। আপনি যদি ৫ থেকে ৬ বছর আগের কথা ভাবেন সেক্ষেত্রে মানুষের জীবন ধারা অনেক তাই বদলে গেছে। মানুষের খরচও দ্বিগুন হয়েছে। এখনকার দিনে একটি ছোট পরিবারে ও একজনের রোজগারে ঠিকঠাক ভাবে ভাবে চালাতে হিমশিম খেয়ে যায়। সেইজন্য  বর্তমান সময়কালে কেউ চাকরি করলেও অবসর সময়ে ব্যবসা করার পথ বেঁচে নিচ্ছেন। এ ক্ষেত্রে বাড়ির ভেতরে থেকে ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবছেন অনেকেই। যদিও ইতিমধ্যেই এ ধরণের ব্যবসা  শুরু করে দিয়েছেন অনেকেই।




আজকের আর্টিকেলে এ আমরা আপনাকে এমন এক ধরণের ব্যবসার  সন্ধান দিতে চলেছি যা আপনি কয়েক লক্ষ্য টাকা তেই শুরু করতে পারবেন। বেবসা টি হলো কোনফ্লেক্স ব্যবসা। আজকাল এই খবর টি প্রায় বেশিরভাগ বাড়িতেই খায়।  যদিও আগেকার দিনে এই খাবার টি উচ্চস্তরের  লোকেদের  প্রাতরাশ এর টেবিলে জায়গা পেলেও বর্তমান সময়ে সব শ্রেণীর লোকেরাই খেয়ে থাকে।ফলে ব্যবসা টি দিন দিন বিস্তারিত হচ্ছে। সেইজন্য যদি এই বেবসা টি করা যায় মাসিক লক্ষাধিক টাকা যাওয়া করা সম্বব।


আপনি যদি কোনফ্লেক্স  ব্যবসা শুরু করতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে কোনফ্লেক্স তৈরী করতে  প্রয়োযনীয় সামগ্রী অর্থাৎ কাচামাল অর্থাৎ ভুট্টা পর্যাপ্ত পরিমানে জোগাড় করতে হবে। এই ব্যবসাটি বেশিরভাগ কাঁচামাল এর ওপর নির্ভর করে থাকে। যেসব জায়গায় ভুট্টার চাষ হয় তার আশেপাশে এই প্রজেক্ট টি করলে পরিবহন খরচ অনেক টাই কম হবে। এ ছাড়াও যদি ভুট্টার চাষ আপনি নিজেই করেন  সেক্ষেত্রে আপনার লাভ এর পরিমান দ্বিগুন হবে। 

কোনফ্লেক্স ব্যবসার প্রয়োজনীয় উপকরণ -

কাঁচামাল অর্থাৎ ভুট্টা , ছোট্ট গুদাম ঘর , কোনফ্লেক্স তৈরী করার মেশিনে , জি এসটি নম্বর , বিদ্যুৎ সুবিধা।   বলে রাখি এই ব্যবসা  করার জন্য  আপনার ২০০০ স্কয়ার ফিট জায়গা থাকার প্রয়োজন। এই ব্যবসা থেকে আপনি প্রতি মাসে লক্ষাধিক টাকা রোজগার করতে পারবেন। ধরুন যদি আপনার ১ কেজি কোনফ্লেক্স তৈরী করতে ৩০ টাকা খরচ হচ্ছে সেটি মার্কেট এ  কমপক্ষ্যে ৭০ তাকে বিক্রি করতে পারবেন। এমনভাবে আপনি যদি দৈনিক ১০০ কেজি কোনফ্লেক্স উৎপাদন করে বিক্রি করলেই মাসে আয় হবে  ১,২০,০০০ টাকার মতো।

বর্তমানে কোনফ্লেক্স এর চাহিদা প্রচুর। সেক্ষেত্রে এই বেবসা টি করে বিপুল অর্থপ উপার্জন করতে পারেন। ধন্যবাদ। 


 





Post a Comment (0)
Previous Post Next Post